সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সায় কলকাতা হাই কোর্টের – ফাটানো যাবে বাজি

নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ :: কোলকাতা :: বাজি মামলায় বুধবার কলকাতা হাই কোর্টের তরফে জানানো হয়েছে, শুধুমাত্র পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড এক্সপ্লোসিভ সেফটি অর্গানাইজেশন বা পেসো দ্বারা স্বীকৃত বাজি ছাড়া অন্য কিছু বিক্রি করা যাবে না। পরিবেশবান্ধব বাজি যাতে বিক্রি হয় সেদিকে নজর দিতে হবে রাজ্য প্রশাসনকে।

দীপাবলিতে রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত দু’ঘণ্টা বাজি ফাটানো হচ্ছে কিনা, তা খতিয়ে দেখবে রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ। তার ফলে বাতাস কতটা দূষিত হল, সেই বিষয়টিও খতিয়ে দেখার দায়িত্ব রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের। আগামী ৪ সপ্তাহের মধ্যে রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদকে হলফনামা জমা দিতে হবে। পরিবেশবান্ধব বাজি ছাড়া অন্য কিছু বিক্রি করবেন না বলে হাই কোর্টে মুচলেকা দেন ব্যবসায়ীরা।

রাজ্যের ৩৩ লক্ষ বাজি ব্যবসায়ী কলকাতা হাই কোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়। ওই মামলার শুনানিতে শর্তসাপেক্ষে বাজি ফাটানোর রায় দেয় সর্বোচ্চ আদালত। রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত পরিবেশ বান্ধব বাজি ফাটানো যাবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। তবে পরিবেশবান্ধব বাজি ফাটানো হচ্ছে কিনা, সে বিষয়ে রাজ্য সরকারকে নজর রাখতে হবে বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়। সেই রায়ের পর বেআইনি বাজি বন্ধের আরজি নিয়ে বুধবার ফের কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন মামলাকারীরা। ওই মামলার শুনানিতে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ বহাল রাখল কলকাতা হাই কোর্ট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × one =