সুভাষ ভৌমিকের আকম্মিক প্রয়াণে শোকস্তব্ধ ভারতীয় ফুটবল মহল।

কুমার মাধব :: সংবাদ প্রবাহ :: মালদা :: বিখ্যাত খেলোয়াড় সুভাষ ভৌমিক ছিলেন মালদার বাসিন্দা।মালদা জেলা স্কুলে পড়াশোনা।এরপর তিনি বিভিন্ন সময়ে ফুটবল খেলার সূত্রে কলকাতায় গিয়েছিলেন। তারপর ইস্টবেঙ্গল মোহনবাগানের হয়ে খেলেছেন মালদার জেলা ক্রীড়া সংস্থার মাঠেও তার খেলা দেখেতে মানুষ ভিড় করতো।

ভারতীয় ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা ফরোয়ার্ড ছিলেন সুভাষ ভৌমিক। তাঁর সময়ে ফুটবল ময়দানে একের পর এক ফুল ফুটিয়ে গিয়েছিলেন। মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গলের হয়ে দাপিয়ে খেলেছেন। ভারতের হয়ে জিতেছেন এশিয়ান গেমসে ব্রোঞ্জ পদক।

খেলোয়াড় হিসেবে সুভাষ ভোমিকের অধ্যায়টা যতটা রঙিন ক্যানভাসে বাধানো ছিল. তার চেয়ে বেশি সাফল্য তিনি পেয়েছেন কোচ হিসেবে। প্রদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে গুরু মেনে কোচ হিসেবে পথ চলা শুরু করেছিলেন। তার পর তো সবটাই ইতিহাস। মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল, মহমেডান সহ ভারতবর্ষের বিভিন্ন ক্লাবে সাফল্যের সাথে কোচিং করিয়েছেন। তবে কোচ হিসেবে সুভাষের সেরা সাফল্য ২০০৩ সালে আশিয়ান ট্রফি। সুভাষ ভৌমিকের এই আকম্মিক প্রয়াণে শোকস্তব্ধ ভারতীয় ফুটবল মহল।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদক কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী। তিনি জানান তার মৃত্যুতে আমরা শোকাহত ।একটা সময় খেলা দেখার জন্য আমরা ডিএসএ মাঠে ভীড় করতাম ।মালদা জেলার ছেলে হয়েও ফুটবল খেলার যথেষ্ট খ্যাতি অর্জন করেছে কলকাতায়। তার মৃত্যুতে ফুটবল জগতের অপূরণীয় ক্ষতি তার আত্মার শান্তি কামনা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − 5 =