স্কটল্যান্ডের ডাম্বারটন ব্রিজে কুকুরেরা কেন আত্মহত্যা করে ?

আনন্দ মুখোপাধ্যায় :: সংবাদপ্রবাহ টিভি ডট কম :: ২৬শে ডিসেম্বর :: কোলকাতা :: স্কটল্যান্ডের ডাম্বারটন শহরে আজ থেকে প্রায় দেড়শ বছরে আগে একটি ব্রিজ বানানো হয় । তার নাম দেওয়া হয় ওভারটন ব্রিজ । এখন অবশ্য লোকেরা কিন্তু তার আসল নাম ডাকেনা । বলে কুকুর আত্মহত্যা ব্রিজ । শুনতে খুব অবাক লাগছে তো ? কিন্তু যতই অবাক লাগুক ঘটনা কিন্তু সেটাই সঠিক ।

আশ্চর্য্যের বিষয় হলো সেতুটির ডানদিকের একটি বিশেষ জায়গা থেকেই কিন্তু কুকুরগুলি আত্মহত্যা করে থাকে । কিন্তু বলছে যে ওই সেতুতে নাকি অশুভ শক্তির উপস্থিতি আছে । ১৯৯৪ সালে নিজের ছোট ছেলেকে খ্রিস্টান বিরোধী বলে ওই সেতুর নিচে ফেলে দেয় । এর কিছুদিন পরে সে নিজেও একই জায়গা থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করে । অনেকেই মনে করেন রহস্যজনক অশুভ শক্তি সম্ভবত এখানে কাজ করে নাহলে বৈজ্ঞানিকরা যে যুক্তিই দিক না কেন এতো ব্রিজ থাকতে কেনো এই ব্রিজটিই এবং একটি বিশেষ স্থান থেকেই কুকুরগুলি আত্মহননের পথ বেঁচে নেয় ?

যুক্তিবাদীরা বলেন মিঙ্ক মানে বেঁজি জাতীয় প্রাণীরা এখানে বেশি মাত্রায় আছে । হাওয়ায় তাদের ছড়িয়ে যাওয়া গন্ধে আকৃষ্ট হয়ে কুকুর গুলি এখানে আসে এবং প্রাচীরের উচ্চতা এবং পাশের গভীরতা না বুঝতে পেরেই ঝাঁপ দেয় এবং নিচের পাহাড়ি ঝর্ণায় পড়ে মারা যায় । ঘটনা যাইহোক সারা স্কটল্যান্ডে ৭৬ হাজার মিঙ্ক চৰোৰীয়ে আছে হাজারো সেতুর আসে পাশে তাই প্রশ্ন কেন এখানেই এবং সেতুটির বিশেষ একটি জায়গা থেকে কেন সারমেয়কুল লাফিয়ে পরে স্বর্গের পথে ? আপনি কি বলতে পারেন ?? সঙ্গের ভিডিও টি অবশ্যই দেখুন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 2 =