স্কুল চত্বর জুড়ে মদের বোতল, প্লাস্টিকের গেলাসের ছড়াছড়ি।

কুমার মাধব :: সংবাদ প্রবাহ :: মালদা :: মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পরে স্কুল খুলতে গিয়ে চক্ষু চড়কগাছ। স্কুল চত্বর জুড়ে মদের বোতল, প্লাস্টিকের গেলাসের ছড়াছড়ি। রয়েছে জুয়ার ফেলে রাখা কাগজের টুকরোও। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, গোটা স্কুল, সংলগ্ন প্রাথমিক স্কুল সবটাই আসলে সমাজ বিরোধীদের আস্তানা হয়ে গিয়েছে।এই নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও কোনও ফল হয় নি। আজ স্কুল খুলতে গিয়ে হাতেনাতে তার প্রমাণ মিলল।

ঘটনা মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরের বি এম হাইস্কুল ও ভজমোহন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের। পরিস্থিতি দেখে উদবিগ্ন শিক্ষকরা বিষয়টি থানায় জানিয়েছেন। স্কুলটি আবার হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীন হাসপাতালের কাছেই। এলাকা বাসীদের অভিযোগ,রাতের অন্ধকারে এই স্কুলের দখল চলে যায় সমাজবিরোধীদের হাতে। মদের আসর, জুয়ার ঠেক নিয়মিত বসে। এমনকি হেরোইনের নেশাও চলে। কিন্তু তাঁদের কিছু বলার সাহস কারো নেই।

স্কুল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি বার কয়েক জানানো হলেও বিশেষ গরজ কেউ দেখান নি বলেই অভিযোগ। যদিও টিচার ইন চার্জ অশোক কুমার দাস,জানান, এই বিষয়টি হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশের নজরে আগেও এনেছেন। এবারেও জানাবেন।কারণ স্কুল ১৬ তারিখের পর খুললে কীভাবে সব পরিস্কার সম্ভব হবে, তা নিয়ে তিনি নিজেও উদবিগ্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − two =