নিউজ ডেস্ক :: সংবাদ প্রবাহ ::নয়াদিল্লি :: সংসদে কৃষি আইন প্রত্যাহারের পরেও একাধিক দাবিতে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছিলেন কৃষকরা। কিন্তু কেন্দ্র দাবি পূরণের আশ্বাস দেওয়ায় ১৫ মাস পরে দিল্লি সীমানা থেকে আন্দোলন তুলে তারা গ্রামে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন।আন্দোলনকারী কৃষকদের যৌথ মঞ্চ ‘সংযুক্ত কিসান মোর্চা’ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুর ২টায় সিঙ্ঘু সীমানায় আনুষ্ঠানিকভাবে কৃষক আন্দোলন প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করা হতে পারে।

ভারতের কেন্দ্র সরকার ইতিমধ্যে আন্দোলনকারী কৃষকদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার, মৃত কৃষক পরিবারগুলোকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার মতো একাধিক দাবি মেনে নেওয়ার কথা জানিয়েছে। দাবি বাস্তবায়নে তারা লিখিত নিশ্চয়তা দেওয়ারও ঘোষণা করেছে। গত সপ্তাহে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কৃষকদের দাবিগুলো বিবেচনা করার কথা জানিয়ে ফোন করেছিলেন।

এর পর কেন্দ্রের সঙ্গে আলোচনার জন্য পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করে ‘সংযুক্ত কিসান মোর্চা’। মঙ্গলবার সেই কমিটির বৈঠকে আন্দোলন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

গত বছরের নভেম্বর থেকে তিনটি কৃষি আইনের বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে আন্দোলন শুরু করেন দেশটির কৃষকেরা। তারা দেশটির রাজধানী পর্যন্ত অবরুদ্ধ করেন। কৃষকদের টানা আন্দোলন সত্ত্বেও ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার আইন বহাল রাখার পক্ষে অনড় অবস্থান নেয়। সমস্যার সমাধানে কৃষক প্রতিনিধিদের সঙ্গে সরকারের দফায় দফায় বৈঠক হয়। কিন্তু কোনো পক্ষ ছাড়া না দেওয়ায় এত দিন কোনো সমাধান আসেনি।

অবশেষে কৃষকদের আন্দোলনের কাছে নতি স্বীকার করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। গত মাসে উত্তর প্রদেশ ও পাঞ্জাবের নির্বাচনের প্রাক্কালে তিনি এই তিন আইন প্রত্যাহারের বিষয়ে তার সরকারের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন।

সূত্র: আনন্দবাজার, এনডিটিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here