নিজস্ব সংবাদদাতা :: সংবাদ প্রবাহ :: চন্দননগর :: চন্দননগর পুরনিগমের ৩৩ টি ওয়ার্ডে ভোট ২২ তারিখ। এই মুহূর্তে তাই সবকটি রাজনৈতিক দলের প্রচারই চলছে পুরোদমে। তবে করোনা পরিস্থিতিতে নির্বাচন কমিশনের বেঁধে দেওয়া নিয়ম মেনে বড় মিছিল, জনসভা নয়, ভারচুয়াল প্রচার এবং ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে বাড়ি বাড়ি জনসংযোগে বেশি জোর দেওয়া হচ্ছে।

রবিবার সকালে ২৬ নং ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী সন্ধ্যা দাসের হয়ে প্রচারে নামেন পুরশুড়ার বিজেপি বিধায়ক বিমান ঘোষ। অভিযোগ, তিনি সদলবলে প্রচার মিছিলের আয়োজন করেছিলেন। তাতে শয়ে শয়ে সমর্থকের হাজির হন। চন্দননগর কমিশনারেটের পুলিশ সেই মিছিল ভেস্তে দেয়। জানানো হয় যে কমিশনের বিধি মেনে একসঙ্গে ৫ জনের বেশি জমায়েত করা যাবে না। পুলিশের কথা শুনে তখনকার মতো জমায়েত সরে যায়।

কিন্তু এর পরেই দেখাযায় তাঁরাই মালাপাড়া কালীতলা এলাকায় বিজেপি বিধায়ক বিমান ঘোষের নেতৃত্বে বহু সমর্থক মিলে প্রচারে বেরন। পুনরায় চন্দনগর কমিশনারেটের পুলিশ তাদের বেশি সমর্থক নিয়ে মিছিল করতে বাধা দিলে মিছিলটি উত্তপ্ত হয়ে পড়ে কোবিদ বিধি ভেঙে মিছিলের দায়ে গ্রেপ্তার করা হয় পুরশুড়ার বিজেপি বিধায়ক বিমান ঘোষ, সাংগঠনিক জেলার সভাপতি তুষার মজুমদার, যুব মোর্চা সভাপতি সুরেশ সাউ কে ।