নিজস্ব সংবাদদাতা :: সংবাদ প্রবাহ :: কোলকাতা :: UP ATS টিম পশ্চিমবঙ্গ থেকে দুই রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করেছে। কোলকাতা থেকে গ্রেপ্তার হওয়া মোহাম্মদ জামিল ওরফে হরিশউল্লাহ ও নূর আমিন হলেন রোহিঙ্গা মুসলিমরা মূলত মায়ানমারের।গ্রেপ্তার করা রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশি নাগরিকদের অবৈধভাবে ভারতে আনা রোহিঙ্গাদের নথি জাল করার অভিযোগ রয়েছে। জাল নথি তৈরির অভিযোগে দু’জনকেই গ্রেফতার করেছে ইউপি এটিএস।

বলা হচ্ছে, হরিশুল্লাহ কিছুদিন আগে বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে পশ্চিমবঙ্গে অবৈধভাবে প্রবেশ করেছিল। সেখানে তিনি মোহাম্মদ জামিলের নামে একটি জাল পরিচয়পত্র পান। বলা হচ্ছে, ২৪ পরগনা জেলায় তার তৈরি একটি জাল ভারতীয় পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। নিজের ভারতীয় পরিচয়পত্র তৈরির পর অন্য রোহিঙ্গাদেরও অবৈধভাবে পশ্চিমবঙ্গে এনে পরিচয়পত্র তৈরির কাজ শুরু করেন মোহাম্মদ জামিল।

মোহাম্মদ জামিল ওরফে হারিসুল্লাহ ভুয়া ভারতীয় নথি দিয়ে অবৈধ রোহিঙ্গা মুসলমানদের পাসপোর্ট ও ভিসা তৈরি করে বিদেশে পাঠানোর পাশাপাশি ভারতের অন্যান্য রাজ্যে অনুপ্রবেশ করত। মহম্মদ জামিলের নির্দেশে অবৈধ রোহিঙ্গা মুসলিম নূর আমিনকে গ্রেফতার করেছে ইউপি ATS। আশ্চর্যের বিষয়, জাল পরিচয়পত্রে তিনি নিজেকে হিন্দু বলে পরিচয় দিয়েছে। যিনি পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার তৈরি একটি জাল ভারতীয় পরিচয়পত্র বানিয়ে রেখে ছিল।

UP ATS উভয় অভিযুক্তকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবে। এই সিন্ডিকেটের সাথে জড়িত অন্যদের সম্পর্কেও তথ্য নেওয়া হবে দুজনের কাছ থেকে, যাতে তাদের কাছেও পৌঁছানো যায়। সূত্র অনুসারে ইউপি ATS এখনও পর্যন্ত ২০ টিরও বেশি অবৈধ রোহিঙ্গাকে গ্রেপ্তার করেছে। জাল পরিচয়পত্র তৈরি করে ইউপির বিভিন্ন এলাকায় বসবাস করে আসছিল এসব লোকজন। গ্রেপ্তার হওয়া মোহাম্মদ জামিলও কয়েক দিন ধরে ইউপির আলীগড়ে ছিলেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here