বর্ধমানের দাইহাটে দলীয় নেতাদের সামনেই বিজেপি কর্মীদের মারপিট

উদয় ঘোষ :: সংবাদ প্রবাহ :: বর্ধমান ::  ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) পশ্চিমবঙ্গ শাখার অভ্যন্তরীণ বিরোধ সামনে এসেছে। রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এবং তার পূর্বসূরি দিলিপ ঘোষের সামনেই মারপিটে জড়িয়েছে কর্মীরা। সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের সময় সুকান্ত মজুমদার এবং দিলিপ ঘোষ উভয়েই ঘটনাটিকে খাটো করে দেখাতে চেয়েছেন। আর এই ঘটনার জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের এজেন্টদের দায়ী করেছেন। তারা উভয়েই দাবি করেন রাজ্যের নতুন নেতৃত্বের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ রয়েছে বিজেপি কর্মীরা।

দলীয় এক বৈঠকে যোগ দিতে দুই নেতা কাটোয়ার দাইহাটে পৌঁছালে একদল বিজেপি কর্মী দিলিপ ঘোষের বিরুদ্ধে স্লোগান শুরু করে। তার বিরুদ্ধে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আক্রান্ত দলীয় কর্মীদের সহায়তায় ব্যর্থতার অভিযোগ তোলে বিজেপি কর্মীরা।

সাংবাদিকদের সামনে ওই স্লোগান চলতে থাকলে আরেক দল কর্মী উঠে তাদের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। তখনই দুই পক্ষের মধ্যে মারপিট শুরু হয়। চেয়ার ছোড়াছুড়ির পাশাপাশি হাতাহাতিও চলে। কিছুক্ষণ পর জেলা পর্যায়ের নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

এই বছরের শুরুতে রাজ্য নির্বাচনে পরাজয়ের পর বেশ কয়েক জন নেতা বিজেপি ছেড়ে গেছেন। বেশিরভাগই ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন। প্রাক্তন  কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়ও যোগ দিয়েছেন তৃণমূলে।

অভ্যন্তরীণ বিবাদের জন্য তৃণমূল কংগ্রেসকে দায়ী করে সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘আমাদের বৈঠকে বিশৃঙ্খলা তৈরি করতে এজেন্ট পাঠিয়েছে তৃণমূল। বিশৃঙ্খলাকারীদের আমরা অবশ্যই শনাক্ত করবো।’

বিশৃঙ্খলায় কোনও কর্মী জড়িত থাকলেও তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান সুকান্ত মজুমদার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × four =